জগন্নাথপুরে বেলা বাড়ার সাথে সাথে বেড়েছে ভোটারের উপস্থিতি - Sangbad Protidin | সংবাদ প্রতিদিন

ব্রেকিং নিউজ

শনিবার, ১৬ জানুয়ারী, ২০২১

জগন্নাথপুরে বেলা বাড়ার সাথে সাথে বেড়েছে ভোটারের উপস্থিতি

সংবাদ প্রতিদিন ডেস্ক:
সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরে শান্তিপূর্ণ ভোট চলছে। সকালে কিছুটা কম থাকলেও বেলা বাড়ার সাথে সাথে ভোটারের উপস্থিতি বেড়েছে। তবে নারী ভোটারের উপস্থিতিই সবচেয়ে বেশি।

ইভিএম পদ্ধতিতে জগন্নাথপুরে ভোট হচ্ছে। চলবে বিকেল ৪টা পর্যন্ত। ভোটারদের মধ্যে নতুন পদ্ধতির ভোট নিয়ে উৎসাহ পরিলক্ষিত হচ্ছে। আজ শনিবার (১৬ জানুয়ারি) সকাল সাড়ে ১০টা পর্যন্ত পৌরসভার কোথাও ভোট নিয়ে ঝামেলার খবর পাওয়া যায়নি।

সকাল ৯টার ইকড়ছই মাদরাসা সেন্টারে গিয়ে দেখা গেছে, এখানে নারী ভোটারদের দীর্ঘ লাইন। এই কেন্দ্রের প্রিজাইডিং কর্মকর্তা জানিয়েছেন, কোনো রকম ঝামেলা ছাড়াই শান্তিপূর্ণভাবে ভোট চলছে। শুরুর দিকে কিছুটা উপস্থিতি কম থাকলেও বেলা বাড়ার সাথে সাথে ভোটার উপস্থিতি বেড়েছে।

সকাল ৮টা থেকে সাড়ে ১০টা পর্যন্ত শহরের স্বরুপ চন্দ উচ্চ বিদ্যালয়সহ কয়েকটি ভোট কেন্দ্র ঘুরে দেখা গেছে, কেন্দ্রগুলোর সামনে অনেকটা উৎসবের আমেজ। প্রচুর ভোটার ও দর্শক ভীড় করে আছেন। কেন্দ্রের ভেতরেও ভোটারদের বেশ উপস্থিতি। বেলা বাড়ার সাথে এই কেন্দ্রগুলোতেও ভোটারের লাইন দীর্ঘ হয়ে যায়।

জগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাচন কার্যালয় সূত্র জানায়, এ পৌরসভার ভোটার ২৮ হাজার ৬৪২ জন। এরমধ্যে পুরুষ ভোটার ১৪ হাজার ৩৯২ এবং নারী ভোটার ১৪ হাজার ২৫০জন। মোট ভোট কেন্দ্র ১২টি। নির্বাচনের দায়িত্বে রয়েছেন ১০ জন ম্যাজিস্ট্রেট, প্রিজাইডিং কর্মকর্তা ১২ জন, সহকারী প্রিজাইডিং ৭৫ জন, পোলিং কর্মকর্তা ১৫০ জন। প্রতি কেন্দ্রে পুলিশের পাশাপাশি ৯ জন করে আনসার সদস্য দায়িত্ব পালন করবে। এছাড়া র‌্যাব, বিজিবিসহ পুলিশের তিন প্লাটুন স্ট্রাইকিং র্ফোস রয়েছে নির্বাচনী দায়িত্ব পালন করছে।

উপজেলা নির্বাচন ও সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা মুজিবুর রহমান বলেন, ‘অত্যন্ত উৎসবমুখর পরিবেশে ভোট হচ্ছে এবং সন্তোষজনক ভোটার উপস্থিতি।’

প্রসঙ্গত, নির্বাচনে ৫ মেয়র প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন। আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী বর্তমান মেয়র মিজানুর রশীদ ভূঁইয়া (নৌকা), বিএনপির প্রার্থী পৌর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক হারুনুজ্জামান হারুন (ধানের শীষ), স্বতন্ত্র প্রার্থী সাবেক মেয়র আক্তারুজ্জামান আক্তার (চামচ), স্বতন্ত্র প্রার্থী যুক্তরাজ্য প্রবাসি আমজাদ আলী শফিক (মোবাইল ফোন) ও স্বতন্ত্র প্রার্থী বিঞ্চু রায় (জগ)। আর কাউন্সিলর পদে ৩৯ এবং ৯ জন নারী কাউন্সিলর প্রতিদ্বন্দ্বিতায় রয়েছেন।

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন