দ্বিতীয় ধাপে সিলেটের ৭ পৌরসভায় ভোটগ্রহণ চলছে - Sangbad Protidin | সংবাদ প্রতিদিন

ব্রেকিং নিউজ

শনিবার, ১৬ জানুয়ারী, ২০২১

দ্বিতীয় ধাপে সিলেটের ৭ পৌরসভায় ভোটগ্রহণ চলছে

সংবাদ প্রতিদিন ডেস্ক:
দ্বিতীয় ধাপে সিলেটের ৭টি পৌরসভায় ভোটগ্রহণ চলছে। শনিবার (১৬ জানুয়ারি) সকাল ৮টা থেকে ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে চলবে একটানা বিকেল ৪টা পর্যন্ত। দ্বিতীয় ধাপের এ নির্বাচনে সিলেট বিভাগের ৭টিসহ ৬০টি পৌরসভায় ভোট হচ্ছে। এরমধ্যে সিলেটের জগন্নাথপুরসহ দেশের ২৮টি পৌরসভায় ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) ভোটগ্রহণ চলছে।

সকাল সাড়ে ১১টা পর্যন্ত ৭ পৌরসভার কোথাও ভোট নিয়ে ঝামেলার খবর পাওয়া যায়নি।

সিলেট বিভাগের যে ৭টি পৌরসভায় ভোট হচ্ছে : মৌলভীবাজারের কুলাউড়া (ব্যালট) ও কমলগঞ্জ (ব্যালট), সুনামগঞ্জ সদর (ব্যালট), ছাতক (ব্যালট) ও জগন্নাথপুর (ইভিএম), হবিগঞ্জের মাধবপুর (ব্যালট) এবং নবীগঞ্জ (ব্যালট)।

নবীগঞ্জ উপজেলা নির্বাচন ও সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা দেবশ্রী দাস পার্লি বলেন, ‘শান্তিপূর্ণ ভোট হচ্ছে। ৮টা থেকে ১১টা পর্যন্ত ৩ ঘন্টা ভোট হয়েছে। এখন পর্যন্ত কোনো অভিযোগ নেই। অত্যন্ত উৎসবমুখর পরিবেশে ভোট হচ্ছে এবং সন্তোষজনক ভোটার উপস্থিতি।’

ছাতক প্রতিনিধি  জানিয়েছেন, সকাল থেকে শান্তিপূর্ণ ভোট হচ্ছে। তবে নারী ভোটারের উপস্থিতিই সবচেয়ে বেশি। সকাল ১১টা পর্যন্ত কোনো অপ্রীতিকর ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি। কয়েকটি কেন্দ্র ঘুরেছি। প্রিজাইডিং কর্মকর্তারা জানিয়েছেন ৬০০ শতাধিক ভোট পড়েছে।

ছাতক উপজেলা নির্বাচন ও সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা ফয়েজুর বলেছেন, ‘আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কড়া নজরদারি আছে। শান্তিপূর্ণ ভোট চলছে। ভোটার উপস্থিতি বেশি আছে।’

কমলগঞ্জ প্রতিনিধি জানিয়েছেন, দ্বিতীয় ধাপের পৌরসভা নির্বাচনে কমলগঞ্জ পৌরসভায় শান্তিপূর্ণ ও উৎসবমুখর পরিবেশে ভোটগ্রহণ চলছে। শীত উপেক্ষা করে ভোটাররা ভোট কেন্দ্রে উপস্থিত হয়েছেন। বিশেষ করে কেন্দ্রগুলোতে পুরুষের চেয়ে নারী ভোটারদের উপস্থিতি বেশি।

কমলগঞ্জ মডেল সরকারী প্রার্থমিক বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্রে পুরুষ ভোটার চেয়ে নারী ভোটারের উপস্থিতি দেখা গেছে। কেন্দ্রের বাহিরে ছিল দীর্ঘ লাইন। সকাল ৮টার আগেই থেকেই নারীরা ভোট কেন্দ্রে আসতে থাকেন। একই অবস্থা ৩নং কেন্দ্র কমলগঞ্জ সরকারী কলেজ ও মডেল সরকারী উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে। শত শত নারী ভোটার উপস্থিত হন।

এই কেন্দ্রে সকাল সাড়ের মধ্যে ৮টায় নৌকার প্রার্থী জুয়েল আহমদ ও স্বতন্ত্র প্রার্থী হেলাল মিয়া ভোট দিয়েছেন।

স্থানীয় নির্বাচন কার্যালয় সূত্র জানিয়েছে, সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর পৌরসভার কেন্দ্রে কেন্দ্রে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) শুক্রবার পৌঁছানো হয়েছে। বাকি ৬টি পৌরসভায় কাগজের ব্যালটে ভোট হচ্ছে। সেগুলোতে আজ শনিবার ভোটগ্রহণ শুরুর আগে ব্যালট পেপার পাঠানো হয়। নির্বাচন উপলক্ষ্যে ভোটকেন্দ্র সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানে ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে।

সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর প্রতিনিধি জানিয়েছেন, শান্তিপূর্ণ ভোট চলছে। সকালে কিছুটা কম থাকলেও বেলা বাড়ার সাথে সাথে ভোটারের উপস্থিতি বেড়েছে। তবে নারী ভোটারের উপস্থিতিই সবচেয়ে বেশি।

ইভিএম পদ্ধতিতে জগন্নাথপুরে ভোট হচ্ছে। চলবে বিকেল ৪টা পর্যন্ত। ভোটারদের মধ্যে নতুন পদ্ধতির ভোট নিয়ে উৎসাহ পরিলক্ষিত হচ্ছে। সকাল সাড়ে ১০টা পর্যন্ত পৌরসভার কোথাও ভোট নিয়ে ঝামেলার খবর পাওয়া যায়নি।

জগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাচন ও সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা মুজিবুর রহমান বলেন, ‘অত্যন্ত উৎসবমুখর পরিবেশে ভোট হচ্ছে এবং সন্তোষজনক ভোটার উপস্থিতি।’

স্থানীয় নির্বাচন কার্যালয় সূত্র আরও জানিয়েছে, সব পৌরসভায় পুলিশের একটি স্ট্রাইকিং ফোর্স ও প্রতি তিন ওয়ার্ডে একটি করে মোবাইল ফোর্স মাঠে রয়েছেন। এছাড়া প্রতি তিন ওয়ার্ডে একটি করে র‌্যাবের টিম টহল দিচ্ছে। ১ লাখের বেশি ভোটার বিশিষ্ট পৌরসভায় চার প্লাটুন বিজিবি, ৫০ হাজার থেকে ১ লাখ ভোটারের পৌরসভায় তিন প্লাটুন এবং ১০ হাজার থেকে ৫০ হাজার ভোটারের পৌরসভায় দুই প্লাটুন এবং ১০ হাজারের কম ভোটারের পৌরসভায় এক প্লাটুন বিজিবি মোতায়েন করা হয়েছে। ঝুঁকিপূর্ণ বিবেচনায় বিভাগের ২টি পৌরসভায় অধিক সংখ্যক আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে। পৌরসভাগুলো হচ্ছে—কমলগঞ্জ, কুলাউড়া।

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন