মনিরামপুর পৌর নির্বাচনে প্রতীক পাবার পর প্রার্থীদের জোর প্রচারনা শুরু - Sangbad Protidin | সংবাদ প্রতিদিন

ব্রেকিং নিউজ

মঙ্গলবার, ১২ জানুয়ারী, ২০২১

মনিরামপুর পৌর নির্বাচনে প্রতীক পাবার পর প্রার্থীদের জোর প্রচারনা শুরু


নাছির খান(যশোর): 
 যশোরের মনিরামপুর পৌর নির্বাচনে প্রার্থরা প্রতীক বরাদ্দের পর জোর প্রচারনা শুরু করেছেন। সোমবার রিটার্নিং অফিস থেকে প্রার্থীদের প্রতীক বরাদ্দ করা হয়। বরাদ্দের পর থেকেই মেয়র, কাউন্সিলর ও সংরক্ষিত(মহিলা) কাউন্সিলর প্রার্থীদের পক্ষে প্রচারন শুরু হয়েছে। সহকারি রিটার্নিং ও উপজেলা নির্বাচন অফিসার সহিদুর রহমান জানান, যাচাই-বাছাই ও প্রত্যাহারের পর সোমবার প্রার্থীদের প্রতীক বরাদ্দ করা হয়। মোট প্রার্থী রয়েছেন ৫১ জন। এর মধ্যে মেয়র প্রার্থী তিন, সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর প্রার্থী ১৫ এবং সাধারন কাউন্সিলর প্রার্থী ৩৩ জন। প্রতীক বরাদ্দের পর থেকে সোমবার দুপুর থেকেই অধিকাংশ প্রার্থীর পক্ষে ভোটারদের দৃষ্টি আকৃষ্ট করতে জোর প্রচারনা শুরু হয়েছে। এ ক্ষেত্রে চলছে মাইকিং এবং পোষ্টারিং। আর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম তো রয়েছেই। মেয়র প্রার্থীরা হলেন আওয়ামীলীগের নৌকা প্রতীকে অধ্যক্ষ কাজী মাহমুদুল হাসান, বিএনপির ধানের শীষে অ্যাডভোকেট শহীদ ইকবাল হোসেন এবং ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের হাতপাখা প্রতীকে আবু তালেব। ১নং সংরক্ষিত(মহিলা)ওয়ার্ডে অনিমা মিত্র পেয়েছেন চশমা প্রতীক, ফারহানা আফরোজ রিক্তা জবাফুল, পারভীন আক্তার আনারস এবং রেনুকা হালদার পেয়েছেন দুইতলা বাস প্রতীক। ২নং ওয়ার্ডে শংকরী রানী বিশ্বাস দুইতলা বাস, গায়েত্রী রানী পাল আনারস, অপেলা খাতুন জবাফুল এবং ফারজানা আক্তার পেয়েছেন চশমা প্রতীক। ৩নং ওয়ার্ডে গীতা রানী কুন্ডু পেয়েছেন জবাফুল, রিক্তা পারভীন চশমা, মাজেদা খাতুন আনারস, জাহানারা বেগম টেলিফোন, জেসমিন বেগম অটোরিকশা, রেক্সোনা বেগম আংটি এবং লিলিমা বেগম দুইতলা বাস। অন্যদিকে সাধারণ কাউন্সিলর পদে ১নং(হাকোবা) ওয়ার্ডে মোহাম্মদ আজিম পেয়েছেন পানির বোতল, অনিসুর রহমান উট পাখি এবং মিজানুর রহমান পাঞ্জাবী প্রতীক। ২নং (মহাদেবপুর-গাংড়া-জয়নগর) ওয়ার্ডে গোপাল মল্লিক পেয়েছেন পানির বোতল, আনোয়ার হোসেন টেবিল ল্যাম্প, আলমগীর হোসেন ডালিম এবং সুমন কুমার দাস উট পাখি প্রতীক। ৩নং (মনিরামপুর) ওয়ার্ডে বাবুলাল চেীধুরী পেয়েছেন উট পাখি, গৌর কুমার ঘোষ পানির বোতল এবং পলাশ ঘোষ ডালিম প্রতীক। ৪নং (দূর্গাপুর-স্বরুপদাহ) ওয়ার্ডে আদম আলী পেয়েছেন টেবিল ল্যাম্প, আব্দুর রহমান পানির বোতল, লুৎফর রহমান ডালিম এবং মহসিন হোসেন উটপাখি প্রতীক। ৫নং (তাহেরপুর) ওয়ার্ডে মফিজুর রহমান পেয়েছেন পানির বোতল, আসাদুজ্জামান মোড়ল উটপাখি এবং শরিফুল ইসলাম টেবিল ল্যাম্প প্রতীক। ৬নং(জুড়ানপুর-বিজয়রামপুর আংশিক) ওয়ার্ডে জামশেদ আলী পেয়েছেন টেবিল ল্যাম্প, আব্দুল কুদ্দুস উটপাখি, কামরুজ্জামান পাঞ্জাবী, এবং মফিজুর রহমান ডালিম প্রতীক। ৭নং (মোহনপুর) ওয়ার্ডে কামরুজ্জামান পেয়েছেন ডালিম, রফিকুল ইসলাম পানির বোতল, ইউছুফ আলী টেবিল ল্যাম্প এবং রফিকুল ইসলাম পেয়েছেন উটপাখি প্রতীক। ৮নং (কামালপুর-মোহনপুর আংশিক) ওয়ার্ডে বাবুল রহমান পানির বোতল, ফজলুর রহমান ডালিম এবং ইমন আহমেদ হায়দার উট পাখি প্রতীক।৯নং (বিজয়রামপুর) ওয়ার্ডে মাষ্টার হাবিবুর রহমান পেয়েছেন টেবিল ল্যাম্প, সন্তোষ স্বর পাঞ্জাবী, আইয়ুব পাটোয়ারী উটপাখি , নূর আলম পানির বোতল এবং ফারুক হোসেন ডালিম প্রতীক।

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন