মনিরামপুরে পৃথক সড়ক দূর্ঘটনায় নিহত ১, আহত ৮ - Sangbad Protidin | সংবাদ প্রতিদিন

ব্রেকিং নিউজ

শনিবার, ২ জানুয়ারী, ২০২১

মনিরামপুরে পৃথক সড়ক দূর্ঘটনায় নিহত ১, আহত ৮


নাছির খান (যশোর) : 

যশোরের মনিরামপুরে পৃথক দুটি স্থানে সড়ক দূর্ঘটনায় জামাল হোসেন নামে এক কিশোর নিহত এবং নারী-শিশুসহ ৮ জন আহত হয়েছে। এর মধ্যে নিহত জামাল হোসেন পৌরশহরের গাংড়া এলাকার ইটভাটা শ্রমিক শফিকুল ইসলামের ছেলে। জামাল পৌরশহরের একটি টি-ষ্টলের কর্মচারী ছিলেন। জানাযায়, শুক্রবার সন্ধ্যার পর জামাল হোসেন বাড়ি থেকে বাইসাইকেলে করে পৌরশহরের উদ্দেশ্যে রওনা হয়। রাত সাতটার দিকে পথিমধ্যে মোড়ে চিড়ার মিলের সামনে পৌছলে বিপরীত দিক থেকে আসা মিকসার মেশিন বহনকরা একটি ট্রাক্টরের ধাক্কায় গুরুতর আহত হয়। পরে তাকে উদ্ধারের পর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে জরুরী বিভাগের চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করেন। পরবর্তিতে স্থানীয়রা ওই ট্রাক্টরটি আটক করে পুলিশে দেয়।

অপরদিকে শনিবার দুপুর একটার দিকে উপজেলার নেহালপুর বাজার থেকে যাত্রীবাহী একটি ট্রেকার চুকনগরের উদ্দেশ্যে রওনা হয়। পথিমধ্যে নেহালপুর মেঠোপাড়া মোড়ে পৌছলে নিয়ন্ত্রন হারিয়ে ট্রেকারটি রাস্তার পাশে একটি গাছের সাথে ধাক্কা লাগে। এতে আটজন আহত হয়। আহতদের উদ্ধারের পর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। জরুরী বিভাগের দায়িত্বরত ডা: মোসাব্বিরুল ইসলাম রিফাত জানান, আটজনের মধ্যে অজ্ঞাত পরিচয়ের একজন মহিলা, সাত বছর বয়সী এক ছেলে এবং সাতক্ষীরা জেলার শ্যামনগর উপজেলার আল আমিন নামে অপর এক ব্যক্তির অবস্থার অবনতি হওয়াই উন্নত চিকিৎসার জন্য যশোর ২৫০ শয্যা হাসাপাতালে স্থানান্তর করা হয়। বাকী পাঁচ জনকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। এরা হলেন কেশবপুর উপজেলার কালিচরনপুর গ্রামের বিপুল মন্ডল, প্রতিমা মন্ডল, সাতক্ষীরা জেলার শ্যামনগর উপজেলার আবদুস সালাম, আক্কাস আলী ও হযরত সরদার। মনিরামপুর থানার ওসি(সার্বিক) রফিকুল ইসলাম জানান, নিহত জামালের অভিভাবকরা মামলা করেনি। তবে শনিবার দূর্ঘটনায় পতিত হওয়া ট্রেকারটি উদ্ধার করা হয়েছে।

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন