সোনালী ব্যাংক মনিরামপুর শাখায় জাতীয় পতাকা অবমাননার অভিযোগ - Sangbad Protidin | সংবাদ প্রতিদিন

ব্রেকিং নিউজ

বৃহস্পতিবার, ১৭ ডিসেম্বর, ২০২০

সোনালী ব্যাংক মনিরামপুর শাখায় জাতীয় পতাকা অবমাননার অভিযোগ

নাছির খান, যশোর প্রতিনিধি:

শাখা ব্যাসস্থাপক বরখাস্ত ও আনসার সদস্য প্রত্যাহার। 

মনিরামপুরে মহান বিজয় দিবসে সোনালী ব্যাংক মনিরামপুর শাখায় জাতীয় পতাকা অবমাননার অভিযোগে শাখা ব্যবস্থাপক ফারুকুজ্জামানকে সাময়িক বরখাস্ত এবং গার্ড (আনছার সদস্য) জাহাঙ্গীর আলমকে প্রত্যহার করে তাদের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সমর্পন করা হয়েছে। এদিন ব্যাংকের এ শাখায় ঝাড়ু দেয়া হাতলের আগায় জাতীয় পতাকা উত্তোলনের একটি ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়।

এর প্রেক্ষিতে বৃহস্পতিবার (১৭ ডিসেম্বর) সোনালী ব্যাংক খুলনা অফিসের জেনারেল ম্যানেজার মোঃ রেজাউল করিম, যশোর ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার শফিকুল ইসলাম, এসিস্ট্যান্ড জেনারেল ম্যানেজার মোঃ আব্দুল মজিদ এবং এসিস্ট্যান্ড জেনারেল ম্যানেজার খুলনার হাবিবুর রহমান বিষয়টির তদন্তে আসেন। এবং সকাল ১০ টা থেকে সাড়ে তিনটা পর্যন্ত সোনালী ব্যাংকের সকল কর্মকর্তা কর্মচারিদের বিভিন্ন ভাবে জিজ্ঞাসা করে মুল ঘটনা উদ্ধারের চেষ্টা করে। ব্যাংক ছাড়াও উপজেলা নির্বাহী অফিসার, উপজেলা চেয়ারম্যান সহ সাংবাদিকদের সাথেও কথা বলে প্রতিবেদন তৈরী করেন।

প্রতিবেদন রিপোর্টে বলা হয় ১৬ই ডিসেম্বর মনিরামপুর শাখায় যে জাতীয় পতাকা বাঁধা ছিলো সেটি ঝাড়ুর হাতল নয়, সেটি ছিলো একটি এসএস পাইপ। ব্যাংকে সোজা বাঁশ ও নতুন পতাকা থাকতেও কেন বাঁশে পতাকা না টানিয়ে এস এস পাইপে ব্যবহার করলো এটার বিষয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করেন।

এদিকে ১৬ই ডিসেম্বর (বুধবার) ওই শাখায় জাতীয় পতাকা টানাতে একটি ঝাড়ুর হাতল ব্যবহার করা হয় এমন অভিযোগ উঠে। বিষয়টি নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হলে ব্যাপক তোলপাড়ের সৃষ্টি হয়। বিষয়টি খতিয়ে দেখতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাসহ প্রশাসনের একাধিক কর্মকর্তা সরেজমিন পরিদর্শন করেন।

এ ঘটনার প্রেক্ষিতে গতকাল সংশ্লিষ্ট উর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ সরেজমিনে তদন্ত শেষে শাখা ব্যবস্থাপককে সাময়িক বরখাস্ত করাসহ তদস্থলে তৌহিদুর রহমান নামে একজনকে ব্যবস্থাপকের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

এদিকে সদ্য সাময়িক বরখাস্তকৃত শাখা ব্যবস্থাপক ফারুকজ্জামান দাবি করেন, এ ঘটনার দুই দিন আগে একটি কন্যা সন্তানের জন্ম হয়। ওই শিশু অসুস্থ্য হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকায় তিনি এদিন শাখায় আসতে দেরি করেন। তবে, জাতীয় পতাকা উত্তোলনের জন্য একটি বাঁশ নিয়ে আসাসহ সব ধরনের ব্যবস্থা করে রাখেন। কিন্তু ব্যাংকের আনসার সদস্য এসএস পাইপের ভাঙ্গা অংশে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করতে কেন এস এস পাইপ ব্যবহার করলো তা আমি বুঝতে পারলাম না। তার পরও ব্যাংক ব্যবস্থাপক হিসাবে সকল ত্রুটি আমাকে মেনে নিতে হচ্ছে।

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন