কমলগঞ্জে পাকা ঘর পেল গৃহহীন দুই চা শ্রমিক পরিবার - Sangbad Protidin | সংবাদ প্রতিদিন

ব্রেকিং নিউজ

বুধবার, ৯ ডিসেম্বর, ২০২০

কমলগঞ্জে পাকা ঘর পেল গৃহহীন দুই চা শ্রমিক পরিবার


সংবাদ প্রতিদিন ডেস্ক:
মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে গৃহহীন দুই চা শ্রমিক পরিবার পেয়েছে নতুন পাকা ঘর। চা শ্রমিকদের জীবনমান উন্নয়নে টেকসই আবাসন নির্মাণ প্রকল্পের আওতায় মুজিব জন্ম শতবার্ষিকী উপলক্ষে ঘরগুলো তৈরি করে দেওয়া হয়।

মঙ্গলবার (৮ ডিসেম্বর) বিকেলে কমলগঞ্জ উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে এক অনুষ্ঠানে আনুষ্ঠানিকভাবে দুটি পরিবারের কাছে ঘরের চাবি হস্তান্তর করেন সাবেক চীফ হুইপ বীর মুক্তিযোদ্ধা উপাধ্যক্ষ ড. মো. আব্দুস শহীদ এমপি।

সমাজসেবা অধিদপ্তর সূত্রে জানা গেছে, বাংলাদেশ সমাজকল্যাণ পরিষদের অর্থায়নে ও সমাজসেবা অধিদপ্তরের বাস্তবায়নে মাধবপুর ইউনিয়নের মাধবপুর চা বাগানের পুর্ব পাড়ার সাজু শীল এবং ইসলামপুর ইউনিয়নের কুরমা চা বাগানের মধ্য লাইনের রবী রেলীকে ঘর তৈরি করে দেওয়া হয়েছে। এতে ব্যয় হয়েছে ৮ লাখ ১ হাজার ৪ শত ৫৮ টাকা।

চাবি হস্থান্তর ও ঘরের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান উপলক্ষে আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন কমলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আশেকুল হক। সমাজকর্মী সুমন পালের সঞ্চালনায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন সাবেক চীফ হুইপ উপাধ্যক্ষ ড. মো. আব্দুস শহীদ। স্বাগত বক্তব্য রাখেন কমলগঞ্জ উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা প্রানেশ চন্দ্র বর্মা।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে আব্দুস শহীদ এমপি বলেন, ‘সরকারের নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী গৃহহীন, অসহায় ও দুঃস্থ জনগণের জন্য বাসস্থান নির্মাণে আন্তরিক ভাবে কাজ করা হচ্ছে। এ লক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়সহ বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে প্রকল্প বাস্তবায়িত হচ্ছে। সব প্রকল্পের বাস্তবায়ন সম্পন্ন হলে দেশের কোনো মানুষ গৃহহীন থাকবে না।’

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদের নারী ভাইস চেয়ারম্যান বিলকিস বেগম, বিআরডিবির সাবেক চেয়ারম্যান ইমতিয়াজ আহমেদ বুলবুল, মাধবপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি আসিদ আলি, সাংগঠনিক সম্পাদক আলমগীর চৌধুরী শাওন ও বাগান পঞ্চায়েত সভাপতি সাধুরাম দাশ প্রমুখ। এসময় স্থানীয় আওয়ামী লীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দরা উপস্থিত ছিলেন। 

অপরদিকে সমতলের ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়নে ২০১৯-২০ অর্থবছরে সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের জাতীয় সমাজকল্যাণ পরিষদের অর্থায়নে কমলগঞ্জ উপজেলার ৫টি ইউনিয়নের চা শ্রমিকদের জীবনমান উন্নয়নে টেকসই আবাসন নির্মাণ প্রকল্পের আওতায় ২০ লাখ তিন হাজার ৬৪৫ টাকা ব্যয়ে আধুনিক সুযোগ-সুবিধাসংবলিত নির্মিত পাঁচটি ঘর তৈরী করা হয়েছে।

এরআগে এক অনুষ্ঠানে সাবেক চীফ হুইপ সমাজসেবা অধিদপ্তর কর্তৃক বাস্তবায়িত চা শ্রমিকদের জীবনমান উন্নয়ন কর্মসূচির আওতায় এক হাজার ২৫ জন চা শ্রমিককে জনপ্রতি পাঁচ হাজার টাকা হারে মোট ৫১ লাখ ২৫ হাজার টাকার অনুদানের চেক বিতরণ করেন।

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন