সিলেট অঞ্চলে রোপা আমনের বাম্পার ফলন - Sangbad Protidin | সংবাদ প্রতিদিন

ব্রেকিং নিউজ

শনিবার, ১০ অক্টোবর, ২০২০

সিলেট অঞ্চলে রোপা আমনের বাম্পার ফলন


সংবাদ প্রতিদিন ডেস্ক:
সিলেট অঞ্চলে লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে প্রায় ৩ হাজার হেক্টর জমিতে রোপা আমনের বাম্পার ফলন হয়েছে। চলতি মৌসুমে বিভাগের চার জেলায় ৪ লক্ষ হেক্টরের একটু বেশি জমিতে রোপা আমন আবাদের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছিল। তবে, শেষ পর্যন্ত এ অঞ্চলে রোপা আমন আবাদ হয়েছে প্রায় ৪ লক্ষ ৫ হাজার হেক্টর। যার এক তৃতীয়াংশ শুধুমাত্র সিলেট জেলায় আবাদ হয়েছে।

সিলেট অঞ্চলে গত (২০১৯-২০২০) মৌসুমে রোপা আমনের আবাদ হয়েছিল ৩ লক্ষ ৮৯ হাজার ৪১৫ হেক্টর। হিসেব মতে, গত মৌসুমের চেয়ে এবার ১৫ হাজার ৩৮৫ হেক্টর বেশি আবাদ হয়েছে। আবার, গত কয়েক দিনে উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢল ও অতিবৃষ্টির কারণে সিলেট ও সুনামগঞ্জ জেলায় সাড়ে ৩ হাজার হেক্টর জমির রোপা আমন ধান পানিতে তলিয়ে গেছে। যা সিলেটের চেয়ে সুনামগঞ্জে একটু বেশি।

বিষয়টি নিশ্চিত করেন কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সিলেট অঞ্চলের উপ পরিচালক কৃষিবিদ মজুমদার মো. ইলিয়াস। তিনি বলেন, এবার সিলেটে আমন ধানের চাষ ভালো হয়েছে অন্যবছরের তুলনায়। যে টার্গেট ছিল তার চেয়ে বেশী আমন ধান আবাদ হয়েছে। অন্য জেলার চেয়ে এবার সিলেটে আমন ধানের চাষ খুবই ভালো হয়েছে। যদি পাহাড়ি ঢল ও বৃষ্টি না হত তাহলে আমন ধানের চাষ আরও ভালো হত। অনেক জায়গায় রোমা আমন ধান পানিতে তলিয়ে গেছে।

কৃষি অফিস সূত্র জানায়, চলতি রোপা আমন মৌসুমে সিলেট অঞ্চলে ৪ লক্ষ এক হাজার ৯৮৭ হেক্টর জমিতে রোপা আমন আবাদের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছিল। এরমধ্যে ছিল উফশী ৩ লক্ষ ৩৮ হাজার ৭৫১ ও স্থানীয় জাতের ৬৩ হাজার ২৩৬ হেক্টর। আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় শেষ পর্যন্ত এ অঞ্চলে ৪ লক্ষ ৪ হাজার ৮০০ হেক্টর জমিতে রোপা আমন আবাদ হয়েছে। এরমধ্যে উফশী ৩ লক্ষ ৪১ হাজার ১৭৩ ও স্থানীয় জাতের ৬৩ হাজার ৬২৭ হেক্টর। সবমিলিয়ে এ মৌসুমে লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে রোপা আমন আবাদ হয়েছে ২ হাজার ৮১৩ হেক্টর বেশি।

সূত্রমতে, ২০২০-২০২১ মৌসুমে সিলেট জেলায় এক লক্ষ ৪১ হাজার ২৫০ হেক্টর রোপা আমন আবাদের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছিল। কিন্তু শেষ পর্যন্ত আবাদ হয়েছে এক লক্ষ ৪২ হাজার ৭৭৫ হেক্টর। এরমধ্যে উফশী ৯৯ হাজার ৮৮৫ ও স্থানীয় জাতের ৪২ হাজার ৮৯০ হেক্টর। সম্প্রতি অতিবৃষ্টিতে রোপা আমনের আবাদ নিমজ্জিত হয়েছে এক হাজার ৭৫০ হেক্টর। সবমিলিয়ে সিলেটে লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে এক হাজার ৫২৫ হেক্টর জমি বেশি আবাদ হয়েছে।

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন