আইসোলেশনে থেকে মেয়র আরিফ যা বললেন - Sangbad Protidin | সংবাদ প্রতিদিন

ব্রেকিং নিউজ

রবিবার, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০২০

আইসোলেশনে থেকে মেয়র আরিফ যা বললেন

সংবাদ প্রতিদিন ডেস্ক:
করোনা আক্রান্ত হওয়ার পর হোম আইসোলেশনে রয়েছেন সিসিক মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী। পরিবারের লোকজন ছাড়া তার পাশে আর তেমন কেউ নেই। সিসিকের জরুরী কাজও আটকে রয়েছে মেয়রের অসুস্থতার কারণে। তবে পূনরায় নগরবাসীর সেবা দিতে উদগ্রীব হয়ে আছেন মেয়র আরিফ। ইতোমধ্যে মেয়রের সুস্থতা কামনায় বিএনপি নেতাকর্মীদের পাশাপাশি বিভিন্ন ওয়ার্ড পর্যায়ের নেতাকর্মীদের পাশাপাশি অনেকেই দোয়া প্রার্থানা করেন।

এ বিষয়ে মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী বলেন, নগরবাসীর সেবা দেয়ার জন্য উদগ্রীব হয়ে আছি। অসুস্থ থাকলেও সিসিকসহ নগরবাসীর সবসময় খবর রাখছি। কারণ এই নগরবাসী আমাকে তাদের মূল্যবান ভোট দিয়ে নির্বাচিত করেছেন। আমি অসুস্থ হওয়ার পর দেখেছি নগরবাসী আমাকে কি পরিমাণ শ্রদ্ধা করেন এবং ভালোবাসেন। আগামী বুধবার (২৪ সেপ্টেম্বর) পূনরায় করোনাভাইরাস পরীক্ষা করব। রিপোর্টটি নেগেটিভ আসলেই নগরবাসী সেবা দেয়ার জন্য পূনরায় কাজ শুরু করব।

তিনি আরও বলেন, যখন আমার অসুস্থতার খবর চারিদিকে ছড়িয়ে পড়ে তখন অনেকেই ফোন করে আক্ষেপ করেছেন। আমাকে এই নগরবাসী অনেকে কিছু দিয়েছেন। এই নগরবসীর সেবা করে আমি আমার জীবন উৎসর্গ করতে চাই।  করোনায় আক্রান্ত হওয়ার পর হোম আইসোলেশন আর ভালো লাগছে না। তবুও হোম আইসোলেশনে থাকতে হচ্ছে। আগের চেয়ে শরীরটা অনেক ভালো লাগছে।

জানা যায়, করোনাভাইরাসের লক্ষণ প্রকাশ পাওয়ার পরও তিনি স্বাস্থ্যবিধি না মেনে আরও অনেককে ঝুঁকির মুখে ফেলে দিয়ে এ সমালোচনার জন্ম দিয়েছেন। আলোচনা-সমালোচনা বরাবরই আরিফুল হকের সঙ্গী। আরিফও হয়তো এমনটিই চান। হয়তো থাকতে চান আলোচনার কেন্দ্রে। এ কারণেই কিনা আরিফ স্রোতের বিপরীতে চলতে ভালোবাসেন, অথবা স্রোতে তাকে নিজের দিকে টেনে নিতে পারে না। দলের হয়েও আরিফ দলের ভরসা হতে পারেন না। বিপরীত আদর্শেরও লোকেরাও সন্দেহের চোখেই দেখেন। ব্যস্ততম সিলেট নগরীর দেখভালের দায়িত্বে থাকা আরিফুল হক হাজার জনতার ভিড়েও দিনশেষে তাই কোথায় যেনো বড় একা। করোনাভাইরাসের শুরু থেকেই মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী বিরামহীন কাজ করছিলেন। লকডাউনের সময় বাসাবাড়িতে আটকে পড়া অসহায় মানুষের মধ্যে ত্রাণ বিতরণ করে তিনি সুনাম কুড়িয়েছিলেন। পাশাপাশি নগরীর চলমান উন্নয়ন কর্মকান্ড পরিদর্শনে তাকে সবসময় দেখা যেত।

গত ১০ সেপ্টেম্বর সিলেট সিটি করপোরেশনের (সিসিক) মেয়র ও বিএনপি কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য আরিফুল হক চৌধুরী করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। এছাড়াও ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়েছেন সিসিকের প্রধান নির্বাহী প্রকৌশলী নূর আজিজুর রহমান। ওইদিন সিলেট ওসমানী মেডিক্যাল কলেজের পিসিআর ল্যাবে তাদের করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়।

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন