কমলগঞ্জে অতিরিক্ত দামে বীজ বিক্রি, জরিমানা - Sangbad Protidin | সংবাদ প্রতিদিন

ব্রেকিং নিউজ

বৃহস্পতিবার, ৩ সেপ্টেম্বর, ২০২০

কমলগঞ্জে অতিরিক্ত দামে বীজ বিক্রি, জরিমানা

কমলগঞ্জ প্রতিনিধি:
মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে অতিরিক্ত দামে কৃষি পণ্যের বীজ বিক্রয়ের অভিযোগে, অভিযুক্ত বীজ বিক্রেতা প্রতিষ্ঠান খাঁন এন্ড সন্সকে ১৬ হাজার টাকা জরিমানা করেছে জাতীয় ভোক্তা-অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর।

বৃহস্পতিবার (৩ সেপ্টেম্বর) বেলা দুইটায় এক কৃষকের অভিযোগ আমলে নিয়ে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর, মৌলভীবাজার জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মো. আল-আমিনের নেতৃত্বে ওই প্রতিষ্ঠানে অভিযান পরিচালনা করা হয়। এসময় আদমপুর বাজার ও নৈনারপার বাজারে নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য সামগ্রীর প্রতিষ্ঠান, ফার্মেসী এবং অন্যান্য দোকানে মনিটরিং ও সচেতনতামূলক কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়।

অভিযানে সহযোগিতায় ছিল কমলগঞ্জ থানা পুলিশ ফোর্স।

জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর, মৌলভীবাজার জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মো. আল-আমিন জানান, কৃষকদের সরলতার সুযোগ নিয়ে অতিরিক্ত দামে টমেটো বীজ বিক্রি করছে এমনি অভিযোগ আনেন কমলগঞ্জ উপজেলার আদমপুর বাজার এলাকার মো. সাজ্জাদ হোসেন নামে একজন কৃষক। তিনি খাঁন এন্ড সন্সের বিরুদ্ধে ৪৫০ টাকার টমেটোর বীজ ৭০০ টাকার অধিক দামে বিক্রি করার অভিযোগ করেন। এই অভিযোগের প্রেক্ষিতে বৃহস্পতিবার সরেজমিনে তদন্তে অভিযোগের সত্যতা পাওয়া যায়। তাই অতিরিক্ত দামে কৃষি পণ্যের বীজ বিক্রয় করার দায়ে খান এন্ড সন্সকে ১৬ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। আইন অনুযায়ী অভিযোগকারী মো. সাজ্জাদ হোসেনকে জরিমানার ২৫ শতাংশ (৪ হাজার টাকা) প্রদান করা হয়।

এছাড়াও অভিযান কালে একই ফ্রিজে মাছ মাংসের পাশাপাশি ঔষধ রাখা, নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্য দ্রব্যের মূল্য তালিকা না রাখা, মেয়াদ উত্তীর্ণ খাদ্য পণ্য বিক্রয় করা, অতিরিক্ত দামে খাদ্য পণ্য বিক্রয় করাসহ বিভিন্ন অনিয়মের দায়ে আরও ৪ প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা করা হয়। আদমপুর বাজারে অবস্থিত ন্যাশনাল ফার্মেসীকে ২ হাজার ৫ শত টাকা, কুরমা রোডে অবস্থিত হক ভেরাইটিজ ষ্টোরকে ১ হাজার টাকা, নইনার পাড় বাজারে অবস্থিত ইভা ট্রেডার্সকে ১ হাজার ৫ শত টাকাসহ ৪ প্রতিষ্ঠানকে মোট ২১ হাজার টাকা জরিমানা আরোপ ও তা আদায় করা হয়।

মো. আল-আমিন জানান, নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যসামগ্রী ন্যায্য মূল্যে প্রাপ্তি নিশ্চিত করার লক্ষ্যে, এবং ভোগ্য পণ্যসামগ্রীর দাম যেন কেউ অনৈতিক ভাবে বাড়াতে না পারে এবং নকল হ্যান্ড সেনিটাইজার ও নিম্ন মানের সংক্রমণরোধী জীবাণুনাশক বিক্রয় না করতে পারে, সেই লক্ষ্যে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর কর্তৃক প্রতিনিয়ত বাজার মনিটরিং কার্যক্রম চলমান থাকবে।

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন