সড়কের প্রকল্পে ডাকবাংলো নয় : প্রধানমন্ত্রী - Sangbad Protidin | সংবাদ প্রতিদিন

ব্রেকিং নিউজ

মঙ্গলবার, ১৮ আগস্ট, ২০২০

সড়কের প্রকল্পে ডাকবাংলো নয় : প্রধানমন্ত্রী


সংবাদ প্রতিদিন ডেস্ক:
জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভায় আজকে সাতটি প্রকল্প অনুমোদন দেয়া হয়। তার মধ্যে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের তিনটি প্রকল্প রয়েছে। এর মধ্যে সড়কের দুটি প্রকল্পে দুটি ডাকবাংলা নির্মাণের প্রস্তাব ছিল। তবে সেই দুটো ডাকবাংলা প্রকল্প থেকে বাদ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

তিনি বলেছেন, সড়কের প্রকল্পে ডাকবাংলো নয়। ডাকবাংলোর প্রয়োজন হলে সারাদেশে কতগুলো ডাকবাংলো লাগবে, সেটার জন্য আলাদা প্রকল্প নিয়ে আসতে হবে।

মঙ্গলবার (১৮ আগস্ট) একনেক সভা শেষে দুটি প্রকল্প থেকে প্রধানমন্ত্রীর ডাকবাংলো বাদ দেয়ার বিষয়টি জানিয়েছেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান।

তিনি বলেন, বারৈয়ারহাট-হেঁয়াকো-রামগড় সড়ক প্রশস্তকরণ এবং খুলনা সড়ক জোনের আওতাধীন মহাসড়কে বিদ্যমান সরু ও ঝুঁকিপূর্ণ পুরাতন কংক্রিট সেতু/বেইলি সেতুর স্থলে কংক্রিট সেতু নির্মাণ– এই প্রকল্প দুটিতে ডাকবাংলোর জন্য ৬ কোটি ৬৯ লাখ টাকা প্রস্তাব করা হয়েছিল। তবে তা প্রধানমন্ত্রী বাদ দিয়ে দিয়েছেন।

এ বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য তুলে ধরে পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, ‘এ প্রকল্পে (বারৈয়ারহাট-হেঁয়াকো-রামগড় সড়ক প্রশস্তকরণ) একটা ইন্টারেস্টিং মন্তব্য আছে প্রধানমন্ত্রীর। একটা আইটেম ছিল রেস্ট হাউজ (ডাকবাংলো) বানানোর। ৩ কোটি টাকার ওপরে একটা রেস্ট হাউজ বানানোর প্রস্তাব ছিল। প্রধানমন্ত্রী বললেন যে, রেস্ট হাউজ তো অনেক আছে। এটার কতটুকু প্রয়োজন, তা নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর মধ্যে সংশয় ছিল। তিনি বলেন, আপনারা কাজ করেন, ঘোরেন। আপনাদের বিশ্রামের জায়গা অবশ্য প্রয়োজন। তাই তিনি বললেন, প্রকল্পের মধ্যে এরকম একটা আইটেম না দিয়ে সারাদেশের যেখানে যেখানে প্রয়োজন, একটা প্রকল্প নিয়ে আসেন। আমি একদিনেই অনুমোদন করে দেব। সুতরাং এটাকে তিনি কেটে দিয়েছেন।’

পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, ‘ডাকবাংলোর যে প্রয়োজন ৫০/৬০ বছর আগে ছিল। ব্রিটিশরা করেছিল ১০০ বছর আগে। তখন তো রাস্তাঘাট ছিল না, গাড়িঘোড়া ছিল না। ঘোড়ায় যেত, নৌকায় যেত, মানুষকে বাধ্য হয়ে থাকতে হতো। এখন তো আর থাকতে হয় না। সকালে গিয়ে দুই ঘণ্টা কাজ করে বিকেলে চলে আসি। একটা জায়গায় বসে চা-পানি খাওয়া দরকার। একটা সুন্দর কটেজ হলেই চলে। এর জন্য বিশাল ডাকবাংলো! বলেই ফেলি, এরকম অনেক জায়গায় নতুন নতুন ডাকবাংলো হচ্ছে। এটা বোধহয় আমাদের চিন্তা করার অবকাশ আছে। তাই প্রধানমন্ত্রী নির্দেশনা দিয়েছেন, এ বিষয়ে আমাদের সতর্ক হতে হবে।’

খুলনার সড়কের প্রকল্পের বিষয়ে পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, ‘এটাতেও একটা বড় ডাকবাংলো ছিল। এটাও প্রধানমন্ত্রী কেটে নিয়েছেন।’

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন