খুনের মামলায় দেবর-ভাবির যাবজ্জীবন - Sangbad Protidin | সংবাদ প্রতিদিন

ব্রেকিং নিউজ

সোমবার, ২০ নভেম্বর, ২০১৭

খুনের মামলায় দেবর-ভাবির যাবজ্জীবন


নিজস্ব প্রতিবেদনঃ দেবর-ভাবির অনৈতিক প্রণয়ে কারণে বাগেরহাটের ইস্কান্দার শেখ নামের এক ব্যক্তি খুন হওয়ার ঘটনায় করা মামলায় তাঁর স্ত্রী ও ভাইসহ তিনজনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ডাদেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। বিচারপতি ভবানী প্রসাদ সিংহ ও বিচারপতি মোস্তাফা জামান ইসলামের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ আজ সোমবার এ রায় দেন।
তিনজন হলেন নিহত ব্যক্তির স্ত্রী পারভীন খাতুন, ভাই মাহমুদ শেখ ও সহযোগী আসাদ তালুকদার।
বিচারিক আদালতের রায়ে মাহমুদ শেখের মৃত্যুদণ্ড, পারভীন খাতুন ও আসাদ তালুকদারের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড হয়েছিল।
দণ্ডাদেশের ওই রায়ের বিরুদ্ধে ডেথ রেফারেন্স ও দুই আসামির করা আপিলের ওপর শুনানি শেষে আজ রায় দেন হাইকোর্ট। রায়ে মাহমুদ শেখের মৃত্যুদণ্ড কমিয়ে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড এবং পারভীন খাতুন ও আসাদ তালুকদারের যাবজ্জীবন বহাল রাখা হয়। রাষ্ট্রপক্ষে শুনানিতে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল মো. বশিরউল্লাহ ও সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল নির্মল কুমার দাশ। দুই আসামির পক্ষে ছিলেন ফজলুল হক ভুঁইয়া ও মো. তাইজুল ইসলাম।
রায়ের পর মো. বশির উল্লাহ প্রথম আলোকে বলেন, দেবর-ভাবির অনৈতিক প্রণয়ের জেরে ইস্কান্দার শেখের খুনের ঘটনায় হাইকোর্ট তিনজনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন। তাঁদের মধ্যে মাহমুদ শেখ ও পারভীন খাতুন কারাগারে রয়েছেন। অপর আসামি আসাদ তালুকদার এখনো পলাতক।
আইনজীবী সূত্র বলেছে, ২০০৮ সালের ২৪ অক্টোবর দেবর-ভাবির অনৈতিক প্রণয়ের জেরে ইস্কান্দার শেখ নামের এক ব্যক্তি বাগেরহাটের চিতলমারির চৌদ্দহাজারিতে খুন হন। ওই ঘটনায় নিহত ব্যক্তির বাবা মো. মোজাম শেখ চিতলমারী থানায় চারজনের বিরুদ্ধে একটি হত্যা মামলা করেন। ওই মামলায় ২০১১ সালের ২৮ জুলাই দ্বিতীয় অতিরিক্ত দায়রা জজ (বাগেরহাট) রায় ঘোষণা করেন। রায়ে মাহমুদ শেখকে মৃত্যুদণ্ড, পারভীন আক্তার ও আসাদ তালুকদারকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও নওয়াব তালুকদার নামের একজনকে খালাস দেওয়া হয়। দণ্ডাদেশের রায়ের পর দুই আসামি হাইকোর্টে আপিল করেন। আসামির ডেথ রেফারেন্স (মৃত্যুদণ্ড অনুমোদন) শুনানির জন্য হাইকোর্টে আসে। এসবের ওপর ১ নভেম্বর ৮ নভেম্বর পর্যন্ত শুনানি হয়। এরপর আদালত আজ রায় ঘোষণা করেন।

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন